দেশে টেকসই এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে উদ্যোক্তা বিকাশের বিকল্প নেই। কেবল উদ্যোক্তা তৈরির মাধ্যমে দারিদ্র্য নিরসন এবং প্রবৃদ্ধির সুফল সবার কাছে পৌঁছে দেয়া সম্ভব।


গত শনিবার রাজধানীর ইস্কাটনে ঢাকা স্কুল অব ইকনোমিকস (ডিএসসিই)-এর সভাকক্ষে উদ্যোক্তা অর্থনীতি ও কর্মসংস্থান তৈরি বিষয়ক কর্মশালার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন। ডিএসসিই উদ্যোক্তা অর্থনীতি ক্লাব কর্মশালার আয়োজন করে।

ডিএসসিইর গভর্নিং কাউন্সিল ও পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশনের (পিকেএসএফ) চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে হকস বে অটোমোবাইলস্ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল হক, গ্রিন ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির, বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ প্রফেসর ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী, ড. জাহেদা আহমদ প্রমুখ বক্তব্য দেন।

ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ বলেন, দেশে টেকসই এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক উন্নয়ন নিশ্চিত করতে উদ্যোক্তা বিকাশের বিকল্প নেই। কেননা উদ্যোক্তা বিকাশের মাধ্যমে নতুন কর্মসংস্থান তৈরির পাশাপাশি সেবা ও পণ্য উৎপাদন যেমন সম্ভব তেমনি অর্থনৈতিক উন্নয়নকে টেকসই করা যাবে। প্রবৃদ্ধির সুফল সবাই পাবে। যার মাধ্যমে প্রকৃত মানব উন্নয়ন নিশ্চিত হবে।

ড. মো. গোলাম সামদানী ফকির  উদ্যোক্তা বিকাশের জন্য উদ্যোক্তা অর্থনীতি বিষয়ে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে কোর্স চালুর ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে ড. মুহম্মদ মাহবুব আলী বলেন, সম্পদ ও আয় বৈষম্য হ্রাসের মাধ্যমে প্রকৃত মানব উন্নয়ন নিশ্চিত করতে নতুন উদ্যোক্তা দরকার। যারা দেশের অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নিতে পারবে।

তিনি দারিদ্র্য নিরসনের জন্য যুব সমাজকে উদ্যোক্তা হিসেবে গড়ে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন।

অনুষ্ঠানে ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ উদ্যোক্তা বিকাশে উদ্ভাবনী ধারণা প্রদান বিষয়ক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।