২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য প্রায় দেড় লাখ মেট্রিকটন সার আমদানি করবে সরকার। এতে ব্যয় হবে ৩৪৪ কোটি ২২ লাখ টাকা।


বুধবার সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠকে এ সংক্রান্ত পাঁচটি ক্রয় প্রস্তাবের অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন। বৈঠকে কমিটির সদস্য, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সিনিয়র সচিব এবং সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের সচিব ও ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোস্তাফিজুর রহমান সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

সচিব বলেন, কর্ণফুলী ফার্টিলাইজার কোম্পানি লিমিটেড (কাফকো) চুক্তি মোতাবেক শিল্প মন্ত্রণালয়কে পাঁচ লাখ ৫০ হাজার টন ইউরিয়া সার সরবরাহের মধ্যে প্রথম লটে ৩০ হাজার মেট্রিক টন ব্যাগড গ্রানুলার ইউরিয়া সার আমদানি করা হবে। এতে ব্যয় হবে ৬৮ কোটি ৬৬ লাখ টাকা।

রাষ্ট্রীয় চুক্তির আওতায় সৌদি আরবের মা আদিন থেকে ২৫ হাজার মেট্রিক টন ডিএপি সার আমদানি করা হবে। এতে ব্যয় হবে ৬৭ কোটি ৯৩ লাখ টাকা। এ ছাড়া বেলারুশ পটাশ কোম্পানি থেকে ৩০ হাজার মেট্রিক এমওপি সার আমদানি করা হবে। এতে ব্যয় হবে ৬৯ কোটি ২১ লাখ টাকা।

কানাডিয়ান ইন্টারন্যাশনাল করপোরেশন থেকে ৩০ হাজার মেট্রিকটন এমওপি সার আমদানি করা হবে। এতে ব্যয় হবে ৬৯ কোটি ২১ লাখ টাকা। রাশিয়ার জেএসসি ফরেন ইকোনোমিক অ্যাসোসিয়েশন প্রডিনটর্গ থেকে ৩০ হাজার টন এমওপি সার আমদানি করবে বাংলাদেশ কৃষি উন্নয়ন করপোরেশন (বিএডিসি)। এতে ব্যয় হবে ৬৯ কোটি ৯৩ লাখ টাকা।